Share:

বাগধারা : কোন শব্দ বা শব্দ-সমষ্টি বাক্যে ব্যবহৃত হয়ে অর্থের দিক দিয়ে যখন বৈশিষ্ট্যময় হয়ে ওঠে, তখন সে সকল শব্দ বা শব্দ-সমষ্টিকে বাগধারা বা বাক্যরীতি বলা হয় ।

 

আক্ষরিক অর্থ ছাপিয়ে যখন কোনো শব্দ বা শব্দগুচ্ছ বিশেষ অর্থ প্রকাশ করে তখন তাকে বাগধারা বা বিশিষ্টার্থক শব্দ বলে । বাগধারা মূলত কথ্য ভাষার সম্পদ হলেও তা এখন আর কেবল কথ্য ভাষায় সীমাবদ্ধ নেই । সাহিত্যে তার বিচরণ এখন যত্রতত্র পরিলক্ষিত হচ্ছে। যেমন-

জান খারাপ

হাঁক দেওয়া

পকেট শুকিয়ে যাওয়া

অর্থাৎ, একটি বা কয়েকটি শব্দ বাক্যে একত্রে ব্যবহৃত হয়ে যখন ঐ শব্দ বা শব্দগুচ্ছের সাধারণ অর্থ প্রকাশ না করে কোন বিশেষ অর্থ প্রকাশ করে, তখন তাদের বলা হয় বাগধারা বা বাক্যরীতি ।

 

প্রবাদ-প্রবচন : অনেকদিন ধরে লোকমুখে প্রচলিত জনপ্রিয় উক্তি যার মধ্যে সরলভাবে জীবনের কোনো গভীরতর সত্য প্রকাশ পায় সেগুলো প্রবাদ বা প্রবচন নামে অভিহিত হয়ে থাকে। কোনো স্বচ্ছন্দ, আন্তরিক কথাবার্তায় বা বর্ণনায় বক্তব্যকে চমকপ্রদ করে ইঙ্গিতময় করে তোলার ক্ষেত্রে সাধারণত প্রবাদ-প্রবচনের ব্যবহার হয়ে থাকে। নতুন অর্থে এর ব্যবহার হয় না বললেই চলে। যেমন-

পড়েছি মোগলের হাতে, খানা খেতে হবে সাথে।

বিলাত ঘুরে মক্কা যাওয়া

দুষ্ট গরুর চেয়ে শূণ্য গোয়াল ভালো

কিছু গুরুত্বপূর্ণ বাগধারা ও প্রবাদ-প্রবচন

 

 

 

অকাল কুষ্মাণ্ড

অপদার্থ, অকেজো

অক্কা পাওয়া

মারা যাওয়া

অগাধ জলের মাছ

সুচতুর ব্যক্তি

অর্ধচন্দ্র

গলা ধাক্কা

অন্ধের যষ্ঠি

একমাত্র অবলম্বন

অন্ধের নড়ি

একমাত্র অবলম্বন

অগ্নিশর্মা

নিরতিশয় ক্রুদ্ধ

অগ্নিপরীক্ষা

কঠিন পরীক্ষা

অগ্নিশর্মা

ক্ষিপ্ত

অগাধ জলের মাছ

খুব চালাক

অতি চালাকের গলায় দড়ি

বেশি চাতুর্যের পরিণাম

অতি লোভে তাঁতি নষ্ট

লোভে ক্ষতি

অদৃষ্টের পরিহাস

বিধির বিড়ম্বনা, ভাগ্যের নিষ্ঠুরতা

অষ্টরম্ভা

ফাঁকি

অথৈ জলে পড়া

খুব বিপদে পড়া

অকূল পাথার***

ভীষণ বিপদ

অন্ধকারে ঢিল মারা

আন্দাজে কাজ করা

অমৃতে অরুচি

দামি জিনিসের প্রতি বিতৃষ্ণা

অগস্ত্য যাত্রা

চির দিনের জন্য প্রস্থান

অল্পবিদ্যা ভয়ংকরী

সামান্য বিদ্যার অহংকার

অনধিকার চর্চা

সীমার বাইরে পদক্ষেপ

অরণ্যে রোদন

নিষ্ফল আবেদন

অহি-নকুল সম্বন্ধ*

ভীষণ শত্রুতা

অন্ধকার দেখা

দিশেহারা হয়ে পড়া

অমাবস্যার চাঁদ**

দুর্লভ বস্তু

অনুরোধে ঢেঁকি গেলা

অনুরোধে দুরূহ কাজ সম্পন্ন করতে সম্মতি দেয়া

বি.দ্র: *সমার্থক বাগধারা : দা-কুমড়া সম্পর্ক        

**সমার্থক বাগধারা : ডুমুরের ফুল       

***সমার্থক বাগধারা : সখাত সলিলে

 

আকাশ কুসুম

অসম্ভব কল্পনা

আকাশ পাতাল

প্রভেদ, প্রচুর ব্যবধান

আকাশ থেকে পড়া

অপ্রত্যাশিত

আকাশের চাঁদ

আকাঙ্ক্ষিত বস্তু

আগুন নিয়ে খেলা

ভয়ঙ্কর বিপদ

আগুনে ঘি ঢালা

রাগ বাড়ানো

আঙুল ফুলে কলাগাছ

অপ্রত্যাশিত ধনলাভ

আঠার আনা

সমূহ সম্ভাবনা

আদায় কাঁচকলায়

তিক্ত সম্পর্ক

আহ্লাদে আটখানা

খুব খুশি

আক্কেল সেলামি

নির্বুদ্ধিতার দণ্ড

আঙুল ফুলে কলাগাছ

হঠাৎ বড়লোক

আকাশের চাঁদ হাতে পাওয়া

দুর্লভ বস্তু প্রাপ্তি

আদায় কাঁচকলায়

শত্রুতা

আদা জল খেয়ে লাগা

প্রাণপণ চেষ্টা করা

আক্কেল গুড়ুম

হতবুদ্ধি, স্তম্ভিত

আমড়া কাঠের ঢেঁকি

অপদার্থ

আকাশ ভেঙে পড়া

ভীষণ বিপদে পড়া

আমতা আমতা করা

ইতস্তত করা, দ্বিধা করা

আটকপালে*

হতভাগ্য

আঠার মাসের বছর

দীর্ঘসূত্রিতা

আলালের ঘরের দুলাল

অতি আদরে নষ্ট পুত্র

আকাশে তোলা

অতিরিক্ত প্রশংসা করা

আষাঢ়ে গল্প

আজগুবি কেচ্ছা

 

ইঁদুর কপালে*

নিতান্ত মন্দভাগ্য

ইঁচড়ে পাকা

অকালপক্ব

ইলশে গুঁড়ি

গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি

ইতর বিশেষ

পার্থক্য

বি.দ্র: *সমার্থক বাগধারা : আটকপালে

 

উত্তম মধ্যম

প্রহার

উড়নচন্ডী

অমিতব্যয়ী

উভয় সংকট*

দুই দিকেই বিপদ

উলু বনে মুক্ত ছড়ানো

অপাত্রে/অস্থানে মূল্যবান দ্রব্য প্রদান

উড়ো চিঠি

বেনামি পত্র

উড়ে এসে জুড়ে বসা

অনধিকারীর অধিকার

উজানে কৈ

সহজলভ্য

ঊনপাঁজুড়ে

অপদার্থ

উদোর পিণ্ডি বুধোর ঘাড়ে

একের দোষ অন্যের ঘাড়ে চাপানো

ঊনপঞ্চাশ বায়ু

পাগলামি

বি.দ্র: *সমার্থক বাগধারা : জলে কুমির ডাঙায় বাঘ, শাঁখের করাত

 

এক ক্ষুরে মাথা মুড়ানো

একই স্বভাবের

এক চোখা

পক্ষপাতিত্ব, পক্ষপাতদুষ্ট

এক মাঘে শীত যায় না

বিপদ এক বারই আসে না, বার বার আসে

এলোপাতাড়ি

বিশৃঙ্খলা

এসপার ওসপার

মীমাংসা

একাদশে বৃহস্পতি

সৌভাগ্যের বিষয়)

এক বনে দুই বাঘ

প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী

এক ক্ষুরে মাথা মুড়ানো

একই দলভুক্ত

এলাহি কাণ্ড

বিরাট আয়োজন

 

ওজন বুঝে চলা

অবস্থা বুঝে চলা

ওষুধে ধরা

প্রার্থিত ফল পাওয়া

 

কচুকাটা করা

নির্মমভাবে ধ্বংস করা

কচু পোড়া

অখাদ্য

কচ্ছপের কামড়

যা সহজে ছাড়ে না

কলম পেষা

কেরানিগিরি

কলুর বলদ

এক টানা খাটুনি

কথার কথা

গুরুত্বহীন কথা

কাঁঠালের আমসত্ত্ব

অসম্ভব বস্তু

কপাল ফেরা

সৌভাগ্য লাভ

কাকতাল

আকস্মিক/দৈব যোগাযোগজাত ঘটনা

কত ধানে কত চাল

হিসেব করে চলা

কড়ায় গণ্ডায়

পুরোপুরি

কান খাড়া করা

মনোযোগী হওয়া

কানকাটা

নির্লজ্জ

কান ভাঙানো

কুপরামর্শ দান

কান ভারি করা

কুপরামর্শ দান

কাপুড়ে বাবু

বাহ্যিক সাজ

কেউ কেটা

গণ্যমান্য

কেঁচে গণ্ডুষ

পুনরায় আরম্ভ

কেঁচো খুড়তে সাপ

বিপদজনক পরিস্থিতি

কই মাছের প্রাণ*

যা সহজে মরে না

কুঁড়ের বাদশা

খুব অলস

কাক ভূষণ্ডী

দীর্ঘজীবী

কেতা দুরস্ত

পরিপাটি

কাছা আলগা

অসাবধান

কাঁচা পয়সা

নগদ উপার্জন

কাঁঠালের আমসত্ত্ব

অসম্ভব বস্তু

কূপমণ্ডুক

সীমাবদ্ধ জ্ঞান সম্পন্ন, ঘরকুনো

কাঠের পুতুল

নির্জীব, অসার

কথায় চিঁড়ে ভেজা

ফাঁকা বুলিতে কার্যসাধন

কান পাতলা

সহজেই বিশ্বাসপ্রবণ

কাছা ঢিলা

অসাবধান

কুল কাঠের আগুন

তীব্র জ্বালা

কেঁচো খুড়তে সাপ

সামান্য থেকে অসামান্য পরিস্থিতি

কেউ কেটা

সামান্য

কেঁচে গণ্ডুষ

পুনরায় আরম্ভ

কৈ মাছের প্রাণ

যা সহজে মরে না

বি.দ্র: *একই রকম বাগধারা : পুঁটি মাছের প্রাণ (যা সহজে মরে যায়)

 

খয়ের খাঁ*

চাটুকার

খাল কেটে কুমির আনা

বিপদ ডেকে আনা

খণ্ড প্রলয়

ভীষণ ব্যাপার

বি.দ্র: *সমার্থক বাগধারা : ঢাকের কাঠি

 

গড্ডলিকা প্রবাহ

অন্ধ অনুকরণ

গদাই লস্করি চাল

অতি ধীর গতি, আলসেমি

গণেশ উল্টানো

উঠে যাওয়া, ফেল মারা

গলগ্রহ

পরের বোঝা স্বরূপ থাকা

গরিবের ঘোড়া রোগ

অবস্থার অতিরিক্ত অন্যায় ইচ্ছা

গরমা গরম

টাটকা

গরজ বড় বালাই

প্রয়োজনে গুরুত্ব

গরু খোঁজা

তন্ন তন্ন করে খোঁজা

গরু মেরে জুতা দান

বড় ক্ষতি করে সামান্য ক্ষতিপূরণ

গাছে কাঁঠাল গোঁফে তেল

প্রাপ্তির আগেই আয়োজন

গা ঢাকা দেওয়া

আত্মগোপন

গায়ে কাঁটা দেওয়া

রোমাঞ্চিত হওয়া

গাছে তুলে মই কাড়া

সাহায্যের আশা দিয়ে সাহায্য না করা

গায়ে ফুঁ দিয়ে বেড়ানো

কোনো দায়িত্ব গ্রহণ না করা

গুরু মারা বিদ্যা

যার কাছে শিক্ষা তারই উপর প্রয়োগ

গোকুলের ষাঁড়

স্বেচ্ছাচারী লোক

গোঁয়ার গোবিন্দ

নির্বোধ অথচ হঠকারী

গোল্লায় যাওয়া

নষ্ট হওয়া, অধঃপাতে যাওয়া

গোবর গণেশ

মূর্খ

গোলক ধাঁধা

দিশেহারা

গোঁফ খেজুরে

নিতান্ত অলস

গোড়ায় গলদ

শুরুতে ভুল

গৌরচন্দ্রিকা

ভূমিকা

গৌরীসেনের টাকা

বেহিসাবী অর্থ

গুড়ে বালি

আশায় নৈরাশ্য

 

ঘোড়ার ডিম

অবাস্তব

ঘোড়া রোগ

সাধ্যের অতিরিক্ত সাধ

ঘোড়া ডিঙিয়ে ঘাস খাওয়া

মধ্যবর্তীকে অতিক্রম করে কাজ করা

ঘোড়ার ঘাস কাটা

অকাজে সময় নষ্ট করা

ঘাটের মরা

অতি বৃদ্ধ

ঘটিরাম

আনাড়ি হাকিম

ঘরের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানো

নিজ খরচে পরের বেগার খাটা

ঘর ভাঙানো

সংসার বিনষ্ট করা

 

চুনকালি দেওয়া

কলঙ্ক

চশমখোর

চক্ষুলজ্জাহীন

চর্বিত চর্বণ

পুনরাবৃত্তি

চাঁদের হাট

আনন্দের প্রাচুর্য

চিনির বলদ

ভারবাহী কিন্তু ফল লাভের অংশীদার নয়

চামচিকের লাথি

নগণ্য ব্যক্তির কটূক্তি

চিনির পুতুল

শ্রমকাতর

চুঁনোপুটি

নগণ্য

চুলোয় যাওয়া

ধ্বংস

চক্ষুদান করা

চুরি করা

চক্ষুলজ্জা

সংকোচ

চোখের বালি

চক্ষুশূল

চোখের পর্দা

লজ্জা

চোখ কপালে তোলা

বিস্মিত হওয়া

চোখ টাটানো

ঈর্ষা করা

চোখে ধুলো দেওয়া

প্রতারণা করা

চোখের চামড়া

লজ্জা

চোখের মণি

প্রিয়

চিনে/ছিনে জোঁক

নাছোড়বান্দা

 

ছ কড়া ন কড়া

সস্তা দর

ছা পোষা

অত্যন্ত গরিব

ছাই ফেলতে ভাঙা কুলা

সামান্য কাজের জন্য অপদার্থ ব্যক্তি

ছেলের হাতের মোয়া

সামান্য বস্তু

ছুঁচো মেরে হাত গন্ধ করা

নগণ্য স্বার্থে দুর্নাম অর্জন

ছক্কা পাঞ্জা

বড় বড় কথা বলা

ছিঁচ কাদুনে

অল্পই কাঁদে এমন

ছিনিমিনি খেলা

নষ্ট করা

ছেলের হাতের মোয়া

সহজলভ্য বস্তু

 

জগাখিচুড়ি পাকানো

গোলমাল বাধানো

জিলাপির প্যাঁচ

কুটিলতা

জলে কুমির ডাঙায় বাঘ*

উভয় সঙ্কট

বি.দ্র: *সমার্থক বাগধারা : উভয় সঙ্কট, শাঁখের করাত

 

ঝড়ো কাক

বিপর্যস্ত

ঝিকে মেরে বউকে বোঝানো

একজনের মাধ্যমে দিয়ে অন্যজনকে শিক্ষাদান

ঝাঁকের কৈ

এক দলভুক্ত

ঝোপ বুঝে কোপ মারা

সুযোগ মত কাজ করা

 

টনক নড়া

চৈতন্যোদয় হওয়া

টাকার কুমির

ধনী ব্যক্তি

টেকে গোঁজা

আত্মসাৎ করা

টুপভুজঙ্গ

নেশায় বিভোর

 

ঠাঁট বজায় রাখা

অভাব চাপা রাখা

ঠোঁট কাটা

বেহায়া

ঠগ বাছতে গাঁ উজাড়

আদর্শহীনতার প্রাচুর্য

ঠুঁটো জগন্নাথ

অকর্মণ্য

ঠেলার নাম বাবাজি

চাপে পড়ে কাবু

 

ডুমুরের ফুল

দুর্লভ বস্তু

ডাকের সুন্দরী

খুবই সুন্দরী

ডুমুরের ফুল**

দুর্লভ

ডান হাতের ব্যাপার*

খাওয়া

ডামাডোল

গণ্ডগোল

বি.দ্র: *একই রকম বাগধারা : বাঁ হাতের ব্যাপার- ঘুষ গ্রহণ   

**সমার্থক বাগধারা : অমাবস্যার চাঁদ

 

ঢাক ঢাক গুড় গুড়

গোপন রাখার চেষ্টা

ঢাকের কাঠি*

মোসাহেব, চাটুকার

ঢাকের বাঁয়া

অপ্রয়োজনীয়

ঢেঁকির কচকচি

বিরক্তিকর কথা

ঢি ঢি পড়া

কলঙ্ক প্রচার হওয়া

ঢিমে তেতালা

মন্থর

বি.দ্র: *সমার্থক বাগধারা : খয়ের খাঁ

 

তালকানা

বেতাল হওয়া

তাসের ঘর

ক্ষণস্থায়ী

তামার বিষ

অর্থের কু প্রভাব

তালপাতার সেপাই

ক্ষীণজীবী

তিলকে তাল করা

বাড়িয়ে বলা

তুলসী বনের বাঘ

ভণ্ড

তুলা ধুনা করা

দুর্দশাগ্রস্ত করা

তুষের আগুন

দীর্ঘস্থায়ী ও দুঃসহ যন্ত্রণা

তীর্থের কাক*

প্রতীক্ষারত

বি.দ্র: *একই রকম বাগধারা : ভূশণ্ডির কাক- দীর্ঘজীবী

 

থ বনে যাওয়া

স্তম্ভিত হওয়া

থরহরি কম্প

ভীতির আতিশয্যে কাঁপা

 

দা-কুমড়া*

ভীষণ শত্রুতা

দহরম মহরম

ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক

দুধে ভাতে থাকা

খেয়ে-পড়ে সুখে থাকা

দিনকে রাত করা

সত্যকে মিথ্যা করা

দু মুখো সাপ

দু জনকে দু রকম কথা বলে পরস্পরের মধ্যে শত্রুতা সৃষ্টিকারী

দেঁতো হাসি

কৃত্তিম হাসি

দাদ নেওয়া

প্রতিশোধ নেয়া

দুকান কাটা

বেহায়া

দুধের মাছি

সু সময়ের বন্ধু

বি.দ্র: *সমার্থক বাগধারা : অহি-নকুল সম্বন্ধ

 

ধরাকে সরা জ্ঞান করা

সকলকে তুচ্ছ ভাবা

ধড়া-চূড়া

সাজপোশাক

ধরাকে সরা জ্ঞান করা

অহঙ্কারে সবকিছু তুচ্ছ মনে করা

ধর্মের কল বাতাসে নড়ে

সত্য গোপন থাকে না

ধর্মের ষাঁড়

যথেচ্ছাচারী

ধরি মাছ না ছুঁই পানি

কৌশলে কার্যাদ্ধার

 

ননীর পুতুল

শ্রমবিমুখ

নয় ছয়

অপচয়

নাটের গুরু

মূল নায়ক

নাড়ি নক্ষত্র

সব তথ্য

নিমক হারাম

অকৃতজ্ঞ

নিমরাজি

প্রায় রাজি

নামকাটা সেপাই*

কর্মচ্যূত ব্যক্তি

নথ নাড়া

গর্ব করা

নেই আঁকড়া

একগুঁয়ে

নগদ নারায়ণ

কাঁচা টাকা/ নগদ অর্থ

নেপোয় মারে দই

ধূর্ত লোকের ফল প্রাপ্তি

বি.দ্র: *একই রকম বাগধারা : তালপাতার সেপাই- ক্ষীণজীবী

 

পটল তোলা

মারা যাওয়া

পগার পার

আয়ত্তের বাইরে পালিয়ে যাওয়া

পটের বিবি

সুসজ্জিত

পত্রপাঠ

অবিলম্বে/সঙ্গে সঙ্গে

পালের গোদা

দলপতি

পাকা ধানে মই

অনিষ্ট করা

পাখিপড়া করা

বার বার শেখানো

পাততাড়ি গুটানো

জিনিসপত্র গোটানো

পাথরে পাঁচ কিল

সৌভাগ্য

পুঁটি মাছের প্রাণ*

যা সহজে মরে যায়

পুরোনো কাসুন্দি ঘাঁটা

বড় রকমের চুরি

পুকুর চুরি

পুরোনো প্রসঙ্গে কটাক্ষ করা

পোঁ ধরা

অন্যকে দেখে একই কাজ করা

পোয়া বারো

অতিরিক্ত সৌভাগ্য

প্রমাদ গোণা

ভীত হওয়া

পায়াভারি

অহঙ্কার

পরের মাথায় কাঁঠাল ভাঙা

অপরকে দিয়ে কাজ উদ্ধার

পরের ধনে পোদ্দারি

অন্যের অর্থের যথেচ্ছ ব্যয়

বি.দ্র: *একই রকম বাগধারা : কৈ মাছের প্রাণ- যা সহজে মরে না

 

ফপর দালালি

অতিরিক্ত চালবাজি

ফুলবাবু

বিলাসী

ফেউ লাগা

আঠার মতো লেগে থাকা

ফুলের ঘাঁয়ে মূর্ছা যাওয়া

অল্পে কাতর

ফোড়ন দেওয়া

টিপ্পনী কাটা

 

বক ধার্মিক

ভণ্ড সাধু

বইয়ের পোকা

খুব পড়ুয়া

বগল বাজানো

আনন্দ প্রকাশ করা

বজ্র আঁটুনি ফসকা গেরো

সহজে খুলে যায় এমন

বসন্তের কোকিল

সুদিনের বন্ধু

বিড়াল তপস্বী

ভণ্ড সাধু

বর্ণচোরা আম

কপট ব্যক্তি

বরাক্ষরে

অলক্ষুণে

বাজারে কাটা

বিক্রি হওয়া

বালির বাঁধ

অস্থায়ী বস্তু

বাঁ হাতের ব্যাপার*

ঘুষ গ্রহণ

বাঁধা গৎ

নির্দিষ্ট আচরণ

বাজখাঁই গলা

অত্যন্ত কর্কশ ও উঁচু গলা

বাড়া ভাতে ছাই

অনিষ্ট করা

বায়াত্তরে ধরা

বার্ধক্যের কারণে কাণ্ডজ্ঞানহীন

বিদ্যার জাহাজ

অতিশয় পণ্ডিত

বিশ বাঁও জলে

সাফল্যের অতীত

বিনা মেঘে বজ্রপাত

আকস্মিক বিপদ

বাঘের দুধ

দুঃসাধ্য বস্তু

বাঘের চোখ

দুঃসাধ্য বস্তু

বিসমিল্লায় গলদ

শুরুতেই ভুল

বুদ্ধির ঢেঁকি

নিরেট মূর্খ

ব্যাঙের আধুলি

সামান্য সম্পদ

ব্যাঙের সর্দি

অসম্ভব ঘটনা

বি.দ্র: *একই রকম বাগধারা : ডান হাতের ব্যাপার- খাওয়া

 

ভরাডুবি

সর্বনাশ

ভস্মে ঘি ঢালা

নিষ্ফল কাজ

ভাদ্র মাসের তিল

প্রচণ্ড কিল

ভানুমতীর খেল

অবিশ্বাস্য ব্যাপার

ভাল্লুকের জ্বর

ক্ষণস্থায়ী জ্বর

ভাঁড়ে ভবানী

নিঃস্ব অবস্থা

ভূতের ব্যাগার

অযথা শ্রম

ভূঁই ফোড়

হঠাৎ গজিয়ে ওঠা

ভিজে বিড়াল

কপটাচারী

ভূশন্ডির কাক*

দীর্ঘজীবী

বি.দ্র: *একই রকম বাগধারা : তীর্থের কাক- প্রতীক্ষারত

 

মগের মুল্লুক

অরাজক দেশ

মণিকাঞ্চন যোগ

উপযুক্ত মিলন

মন না মতি

অস্থির মানব মন

মড়াকান্না

উচ্চকণ্ঠে শোক প্রকাশ

মাছের মায়ের পুত্রশোক

কপট বেদনাবোধ

মশা মারতে কামান দাগা

সামান্য কাজে বিরাট আয়োজন

মুখ চুন হওয়া

লজ্জায় ম্লান হওয়া

মুখে দুধের গন্ধ

অতি কম বয়স

মুস্কিল আসান

নিষ্কৃতি

মেনি মুখো

লাজুক

মাকাল ফল

অন্তঃসারশূণ্য

মিছরির ছুরি

মুখে মধু অন্তরে বিষ

মুখে ফুল চন্দন পড়া

শুভ সংবাদের জন্য ধন্যবাদ

মেছো হাটা

তুচ্ছ বিষয়ে মুখরিত

 

যক্ষের ধন

কৃপণের ধন

যমের অরুচি

যে সহজে মরে না

 

রত্নপ্রসবিনী

সুযোগ্য সন্তানের মা

রাঘব বোয়াল

সর্বগ্রাসী ক্ষমতাবান ব্যক্তি

রাবণের চিতা

চির অশান্তি

রাশভারি

গম্ভীর প্রকৃতির

রাই কুড়িয়ে বেল

ক্ষুদ্র সঞ্চয়ে বৃহৎ

রাজা উজির মারা

আড়ম্বরপূর্ণ গালগল্প

রাবণের গুষ্টি

বড় পরিবার

রায় বাঘিনী

উগ্র স্বভাবের নারী

রাজ যোটক

উপযুক্ত মিলন

রাহুর দশা

দুঃসময়

রুই-কাতলা

পদস্থ বা নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি

 

লগন চাঁদ

ভাগ্যবান

ললাটের লিখন

অমোঘ ভাগ্য

লাল পানি

মদ

লেফাফা দুরস্ত

বাইরের ঠাট বজার রেখে চলেন যিনি

লাল বাতি জ্বালা

দেউলিয়া হওয়া

লাল হয়ে যাওয়া

ধনশালী হওয়া

লেজে গোবরে

বিশৃঙ্খলা

 

শকুনি মামা

কুটিল ব্যক্তি

শাঁখের করাত*

দুই দিকেই বিপদ

শাপে বর

অনিষ্টে ইষ্ট লাভ

শিকায় ওঠা

স্থগিত

শিঙে ফোঁকা

মরা

শিবরাত্রির সলতে

একমাত্র সন্তান

শিরে সংক্রান্তি

বিপদ মাথার ওপর

শুয়ে শুয়ে লেজ নাড়া

আলস্যে সময় নষ্ট করা

শরতের শিশির

সুসময়ের বন্ধু

শত্রুর মুখে ছাই

কুদৃষ্টি এড়ানো

শ্রীঘর

কারাগার

বি.দ্র: *সমার্থক বাগধারা : উভয় সঙ্কট, জলে কুমির ডাঙায় বাঘ

 

ষোল কলা

পুরোপুরি

ষোল আনা

 

ষাঁড়ের গোবর

অযোগ্য

 

সবুরে মেওয়া ফলে

ধৈর্যসুফল মিলে

সরফরাজি করা

অযোগ্য ব্যক্তির চালাকি

সাত খুন মাফ

অত্যধিক প্রশ্রয়

সাত সতের

নানা রকমের

সাপের ছুঁচো গেলা

অনিচ্ছায় বাধ্য হয়ে কাজ করা

সেয়ানে সেয়ানে

চালাকে চালাকে

সবে ধন নীলমণি

একমাত্র অবলম্বন

সাতেও নয়, পাঁচেও নয়

নির্লিপ্ত

সাপের পাঁচ পা দেখা

অহঙ্কারী হওয়া

সোনায় সোহাগা

উপযুক্ত মিলন

সাক্ষী গোপাল

নিষ্ক্রিয় দর্শক

সখাত সলিলে*

ঘোর বিপদে পড়া

সব শেয়ালের এক রা

ঐকমত্য

বি.দ্র: *সমার্থক বাগধারা : অকূল পাথারে

 

হাটে হাঁড়ি ভাঙা

গোপন কথা প্রকাশ করা

হাতটান

চুরির অভ্যাস

হ য ব র ল

বিশৃঙ্খলা

হাতুড়ে বদ্যি

আনাড়ি চিকিৎসক

হরিলুট

অপচয়

হস্তীমূর্খ

বুদ্ধিতে স্থূল

হাড়ে দুর্বা গজানো

অত্যন্ত অলস হওয়া

হরি ঘোষের গোয়াল

বহু অপদার্থ ব্যক্তির সমাবেশ

হাতের পাঁচ

শেষ সম্বল

হীরার ধার

অতি তীক্ষ্ণবুদ্ধি

হোমরা চোমরা

গণ্যমান্য ব্যক্তি

হিতে বিপরীত

উল্টো ফল

হাড় হদ্দ

নাড়ি নক্ষত্র/সব তথ্য

হালে পানি পাওয়া

সুবিধা করা

হাড় হাভাতে

মন্দভাগ্য

 

 

 

বাক্য সহ কিছু বাগধারার উদাহরণ

 

  • অকাল কুষ্মান্ড (অপদার্থ)- মতিনের মত এক অকাল কুষ্মান্ডকে এত বড় কাজের ভার দিতে চাই না।
  • অমাবস্যার চাঁদ (অদর্শনীয় বস্ত্ত)-বুড়ো বয়সে ছেলে পেয়ে কলিম মন্ডল যেন অমাবস্যার চাঁদ হাতে পেলেন।
  • অথৈ জলে পড়া (ভীষণ বিপদে পড়া)-বিষয় সম্পত্তি সব হারিয়ে তিনি অথৈ জলে পড়লেন।
  • অগাধ (গভীর) জলের মাছ (অতি চালাক)-প্রমথবাবু অগাধ জলের মাছ; তার ফাঁকি বোঝা তোমার কাজ নয়।
  • অহি-নকুল বা সাপে-নেউলে বা দা-কুমড়া সর্ম্পক (শত্রু সম্পর্ক)-ভাইয়ে ভাইয়ে অহি-নকুল সম্পর্ক থাকা ভাল নয়।
  • অন্ধের যষ্টি বা নড়ি (একমাত্র অবলম্বন)-বিধবার অঞ্চলের নিধি, অন্ধের যষ্টি এ ছেলেটিকে কেড়ে নিওনা ঠাকুর।
  • অক্কা পাওয়া (মারা যাওয়া)-মাঘ মাসের প্রচন্ড শীতে বৃদ্ধটি অক্কা পেয়েছে।
  • অর্ধচন্দ্র (গলাধাক্কা)-দুষ্ট চাকরটিকে অর্ধচন্দ্র দিয়ে বিদায় করে দিয়েছি।
  • অগস্ত্য যাত্রা (চিরতরে যাত্রা)-শিক্ষকের সাথে দুব্যবহার করে বড়লোকের ছেলেটি স্কুল থেকে অগস্ত্য যাত্রা করেছে।
  • অরণ্যে রোদন (বৃথা-চেষ্টা)-কৃপণের কাছে সাহায্য চাওয়া অরণ্যে রোদন মাত্র।
  • অকালবোধন (অসময়ে আবির্ভাব)-চৈত্র মাসে তাল; এ যে অকালবোধন দেখছি।
  • অন্ধকারে ঢিল মারা (আন্দাজে কোন কাজ করা)-লেখাপড়া না করে পরীক্ষায় অন্ধকারে ঢিল মারলে কোন কাজ হবে না।
  • অনুরোধে ঢেঁকি গেলা (অনুরোধে অসম্ভব কাজ করা)-আমার বিবেকে আমি কাজ করি; পরের অনুরোধে ঢেঁকি গিলতে রাজি নই।
  • অগ্নি পরীক্ষা (কঠোর পরীক্ষা)-প্রেমের অগ্নি পরীক্ষায় ওরা টিকে গেছে; বিয়ে ওদের সুনিশ্চিত।
  • অগ্নিশর্মা (অতিশয় ক্রুদ্ধ)-নীতিবান লোক অন্যায় দেখলে অগ্নিশর্মা হয়ে ওঠেন।
  • আকাশ কুসুম (অসম্ভব কল্পনা)-গরিবের ছেলে কোটিপতি হতে চায়; এ যে আকাশ কুসুম ভাবনা।
  • আক্কেল গুড়ূম (হতবুদ্ধি হওয়া)-তার ঔদ্ধত্য দেখে সবার একেবারে আক্কেল গুড়ূম।
  • আক্কেল সেলামি (বোকামির দন্ড)-বিনা টিকিটে রেল ভ্রমণ করে সে দুশ‘ টাকা আক্কেল সেলামি দিয়েছে।
  • আকাশ ভাঙ্গিয়া পড়া (মহাবিপদ উপস্থিত হওয়া)-উপার্জনক্ষম একমাত্র পুত্রের মৃত্যুতে বৃদ্ধের মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ল।
  • আষাঢ়ে গল্প (অবিশ্বাস্য কাহিনী)-তোমার আষাঢ়ে গল্প এখন বন্ধ কর।
  • আগুন লাগা সংসার (ক্ষয়িষ্ণু সংসার)-এ যে আগুন-লাগা সংসার, এর উন্নতি আর আশা করা যায় না।
  • আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ (হঠাৎ বড়লোক হওয়া)-যুদ্ধের বাজারে ব্যবসা করে অনেকেই আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয়েছে।
  • আলালের ঘরের দুলাল (আদুরে)-আদর দিয়ে ছেলেকে আলালের ঘরের দুলাল করে তুললে তার ক্ষতিই হয়।
  • আঁতে ঘা লাগা (মনে কষ্ট পাওয়া)-সত্য কথা বলাতে তার আঁতে ঘা লেগেছে।
  • আসরে নামা(আবিভূর্ত হওয়া)-অনেকক্ষণ মূখ বুজে থাকার পর তিনি আসরে নামলেন।
  • ইতর বিশেষ(ভেদাভেদ)-ছোট-বড় কোন ইতর বিশেষ আমি পছন্দ করি না।
  • ইচঁড়ে পাকা(অকাল পক্ব)-ছেলেটি কী ইঁচড়ে পাকা। কাপড় ধরেনি, অথচ, সিগারেট ধরেছে।
  • ঈদের চাঁদ(অতি আকাঙিক্ষত বস্ত্ত)-বহুদিন পরে হারানো ছেলেকে ফিরে পেয়ে বিধবা মা যেন ঈদের চাঁদ হাতে পলে।
  • উড়নচন্ডী(অমিতব্যয়ী)-বড়লোকের ছেলেরা প্রায়ই উড়নচন্ডী হয়।
  • উত্তম-মধ্যম(প্রহার) চোরটিকে সবাই উত্তম-মধ্যম দিয়ে বিদায় করল।
  • উদোর পিন্ডি বুদোর ঘাড়ে(একের দোষ অন্যের উপর)-দোষ করল মীরা, মার খেল হীরা; একেই বলে উদোর পিন্ডি বুদোর ঘাড়ে।
  • ঊনপাঁজুরে(দুর্বল)-এ ঊনপাঁজুরে মেয়েটির লতা নাম ঠিকই হয়েছে।
  • এক হাত লওয়া(জব্দ করা)-বাগে পেলে তাকে এক হাত নিতে ছাড়বো না।
  • একচোখা(পক্ষপাতিত্ব)-কোন বিচার কার্যে একচোখা হওয়া উচিত নয়।
  • এক মাঘে শীত যায় না(একবারে বিপদ শেষ হয় না)-টাকা ধার নিয়ে আত্মগোপন করেছে; কিন্তু এক মাঘে শীত যায় না, এ তার জানা উচিত।
  • একাদশে বৃহস্পতি(সুসময়)-করিম সাহেবের এখন একাদশে বৃহসঙতি; ধুলো ধরলে সোনা হয়।
  • ঔষুধে ধরা(প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হওয়া)-পরিচালক আপনার বুদ্ধি নিয়েছে; এবার ওষুধে ধরেছে।
  • ওজন বুঝে চলা(আত্মসম্মান বজায় রাখা)-নিজের ওজন বুঝে না চললে অপমানিত হতে হয়।
  • কই মাছের প্রাণ(যে সহজে মরে না)-বুড়ো লোকটির কই মাছের প্রাণ; এত অসুখেও মরছে না।
  • কাষ্ঠ হাসি(কপট হাসি)-ভদ্রতার খাতিরে কেবল সে কাষ্ঠ হাসি হাসল।
  • কপাল ফেরা(অবস্থা ভাল হওয়া)- লটারিতে দুই লাখ টাকা পেয়ে তার কপাল ফিরছে।
  • কান ভারি করা(কুপরামর্শ দেওয়া)-সে নানা কথা বলে আমার বিরুদ্ধে বড় সাহেবের কান ভারি করে তুলেছে।
  • কলুর বলদ(পরাধীন)-চোখে ঠুলি দেওয়া কলুর বলদের মত আমরা দিনরাত কেবল সংসারের ঘাটি টেনেই চলছি।
  • কেঁচে গন্ডূষ করা(পুনরায় আরম্ভ করা)- ছোট ভাইকে অঙ্ক শেখাতে গিয়ে আবার কেঁচে গন্ডুষ করতে হচ্ছে।
  • কংস মামা(নির্মম আত্মীয়)-আত্মীয়রা সব যে কংস মামার দল; বিপদে এগিয়ে আসবে না কেউ।
  • ক-অক্ষর গোমাংস (বর্ণ পরিচয়হীন)-এমন জ্ঞানী লোকের ছেলে কিনা ক-অক্ষর গোমাংস।
  • কাক-ভূষন্ডী(দীর্ঘায়ু ব্যক্তি)-এ কাক-ভূষন্ডী লোকটার কই মাছের প্রাণ; কত মাঘের শীত গেল, তবু সে মরল না।
  • কাঠালের আমসত্ত্ব বা সোনার পাথরবাটি(অসম্ভব বস্ত্ত)- শক্তির যুগে নিরস্ত্রীকরণ; এ যেন কাঁঠালের আমসত্ত্ব কিংবা সোনার পাথরবাটি।
  • কূপমন্ডুক(সীমাবদ্ধ জ্ঞানসম্পন্ন)-স্ত্রীলোকটি কূপমন্ডক হলেও অতি শান্ত ও মিষ্টভাষিণী।
  • কাঁটা দিয়ে কাঁটা তোলা(শত্রু দিয়ে শত্রু নাশ)-ডাকাত লাগিয়ে ডাকাত ধরেছি; মানে কাঁটা দিয়ে কাঁটা তুলেছি।
  • কত ধানে কত চাল(ঠিকঠাক হিসাব)-বাবার উপর খাও; তাইতো বোঝো না কত ধানে কত চাল।
  • কাঠের পুতুল(নির্বাক, অসার)-কাঠের পুতুলের মত বসে আছ কেন ? কাজে মন লাগাও।
  • কচুবনের কালাচাঁদ(অপদার্থ)-খাবে আর ফূর্তি করবে; লেখাপড়ার বালাই নেই, পোশাকে পরিপাটি; এ যে কচুবনের কালাচাঁদ।
  • খয়ের খাঁ(তোষামুদকারী)-বড় লোকের খয়ের খাঁর অভাব নেই।
  • খাল কেটে কুমির আনা(বিপদ ডেকে আনা)-আমার একা ব্যবসায়ে তাকে অংশীদার করে খাল কেটে কুমির এনেছি।
  • গলগ্রহ(পরের বোঝা হয়ে থাকা)-কারো গলগ্রহ হয়ে থাকতে চাই না।
  • গোকুলের ষাঁড়(স্বেচ্ছাচারী)-খায় দায় আর ঘুরে বেড়ায়; ছেলেটি যেন গোকুলের ষাঁড়।
  • গোঁয়ার গোবিন্দ(কান্ডজ্ঞানহীন)-সলিম মোল্লার ছেলেটি একেবারে গোঁয়ার গোবিন্দ; ভয়ও নেই, ভাবনাও নেই।
  • গুড়ে বালি(আশায় নৈরাশ্য)-আমার উপর চিরদিন খাবে, সে আশা গুড়ে বালি।
  • গোঁফ-খেজুরে(অলস) -তার মত গোঁফ-খেজুরের জীবন আবার স্বাচ্ছন্দ্য।
  • গৌরচন্দ্রিকা(ভণিতা)-গৌরচন্দ্রিকা বাদ দিয়ে আসল কথা বল।
  • গড্ডলিকা প্রবাহ(অন্ধ অনুকরণ)- গড্ডলিকা প্রবাহে জীবন ভাসিয়ে দিলে উন্নতির আশা গুড়ে বালি।
  • গোবরে পদ্মফুল(অস্থানে ভাল জিনিস)- দুঃখিনী বিধবার সুন্দরী মেয়ে; এ যে গোবরে পদ্মফুল।
  • গঙ্গাজলে গঙ্গাপূজা(যার ধনে তার তুষ্টি সাধন)-নজরুল জয়ন্তীতে নজরুলের কবিতা আবৃত্তি করে আমি গঙ্গাজলে গঙ্গাপূজা করলাম।
  • ঘোড়ার ঘাস কাটা(বাজে কাজ করা)-চাল নেই, চুলো নেই, দুপয়সার সঞ্চয় নেই; সারা জীবন ঘোড়ার ঘাস কেটেছে।
  • ঘোড়ার ডিম(অবাস্তব বস্ত্ত)-সারা বছর লেখাপড়া নেই, পরীক্ষায় পাবে ঘোড়ার ডিম।
  • ঘোড়া রোগ(বাতিক)-ভাত নেই, কাপড় নেই, তার আবার সিনেমা দেখার শখ; গরিবের এ ঘোড়া রোগ কেন ?
  • ঘোড়া ডিঙ্গিয়ে ঘাস খাওয়া(উপরওয়ালাকে টপকাইয়া স্বার্থ উদ্ধার করা)- প্রমোশন চাও, বড় সাহেবকে ধরো; ঘোড়া ডিঙ্গিয়ে ঘাস খাওয়ার চেষ্টা করো না।
  • ঘটিরাম(অপদার্থ)- কপাল ভাল থাকলে ঘটিরামদেরও ভাল চাকরির অভাব হয় না।

 

 

 

 

 

বাগধারা প্রাকটিস

 

বাগধারা

অর্থ

অকালপক্ব

ইঁচড়ে পাকা

অকাল বোধন

অসময়ে আবির্ভাব

অগত্যা মধুসূদন

অনন্যোপায় হয়ে

অগস্ত্য যাত্রা

শেষ বিদায়

অঙ্কুশ-তাড়না

অন্তর্গত আঘাত

অজগর বৃত্তি

আলসেমি

অনন্তশয্যা

শেষ শয্যা

অন্ধিসন্ধি

ফাঁকফোকর

অপোগন্ড

অকর্মণ্য/অপ্রাপ্ত বয়স্ক

অবরেসবরে

কালে-ভদ্রে

অলছ-তলছ

উদ্দাম , বাধাবন্ধহীন

অশ্বমেধ যজ্ঞ

বিপুল আয়োজন

অষ্টরম্ভা

কাঁচকলা , ফাঁকি

অসূর্যস্পশ্যা

গৃহে অন্তরীণ

অস্থির পঞ্চক , অস্থির পঞ্চম

কিংকর্তব্যবিমূঢ়তা

অক্ষরে অক্ষরে

সম্পুর্ণভাবে

অ আ ক খ

প্রাথমিক জ্ঞান

অকাল কুষ্মান্ড

অপদার্থ

অন্ধের যষ্ঠি

অপরিহার্য অবলম্বন

অকালের বাদলা

অপ্রত্যাশিত বাধা

অক্ষয় বট

প্রাচীন ব্যক্তি

আগড়ম বাগড়ম

অর্থহীন কথা

অগ্নিশর্মা

ক্ষিপ্ত

অঙ্গ জল হওয়া

শীতল

অতি দর্পে হত লঙ্কা

অহংকারে পতন

অদৃষ্টের পরিহাস

ভাগ্যের বিড়ম্বনা

অন্তর টিপুনি

গোপন ইশারা

অতি চালাকের গলায় দড়ি

বেশি চালাকির অশুভ পরিণাম

অর্ধচন্দ্র

গলাধাক্কা

অমাবস্যার চাঁদ

দুর্লভ বস্তু

অষ্টবজ্র সম্মিলন

প্রতিভাবান ব্যাক্তিদের একত্র সমাবেশ

অগাকান্ত /অঘাচন্ডী/অঘারাম

নির্বোধ , নিরেট বোকা

অন্ধকারে ঢিল ছোঁড়া

পুরপুরি আন্দাজে কাজ করা

অথৈ জল

ভীষণ বিপদ

আকাশ ধরা

বৃষ্টি বন্ধ হওয়া

আকাশে থুথু ফেলা

নিজেরই ক্ষতি করা

আক্কেলমন্ত , আক্কেলমন্দ

বিবেচনা করে এমন

আখাম্বা

বেখাপ্পা

আট কপালে

হতভাগ্য

আটখান করা

টুকরো টুকরো করা

আটাশে ছেলে

দুর্বল ছেলে

আঠারো আনা

বাড়াবাড়ি

আঠারো মাসে বছর

দীর্ঘসূত্রিতা

আড়ং ঘটা

খেয়াঘাট

আতান্তরে পড়া

বিপদে পড়া

আতারি কাতারি

ছটফটে ভাব

আদমের কাল

সুপ্রাচীন কাল

আদায় কাঁচকলায়

শত্রুভাবাপন্ন

আদার ব্যাপারি

সাধারণ লোক

আদাড়ের হাঁড়ি

সামান্য লোক

আমগন্ধি

কাঁচাগন্ধযুক্ত

আমড়া কাঠের ঢেঁকি

অকেজো লোক

আমি-আমি করা

আত্মপ্রশংসা করা

আয়োসুয়ো

সধবা স্ত্রীলোকের দল

আর আর

অন্যান্য

আলেয়ার আলো

দুর্লভ বস্তু

আহ্রাদে ফুটকড়াই

হেসে কুটিকুটি

আঁকুপাঁকু করা

ছটফটানি

আঁচল ধরে বেড়ানো

ব্যক্তিত্বহীন

আকাট মূর্খ

নিরেট বোকা

আকাশ থেকে পড়া

অপ্রত্যাশিত

আকাশ পাতাল

বিশাল ব্যবধান

আকাশের চাঁদ

দুর্লভ বস্তু

আক্কেল গুড়ুম

হতবুদ্ধি হওয়া

আগুনে ঘি ঢালা

রাগ বাড়ানো

আক্কেল সেলামি

ভুলের মাশুল

আহ্রাদি পুতুল

আদুরে অকর্মণ্য

আকাশ কুসুম

অসম্ভব কল্পনা

আঙুল ফুলে কলাগাছ

হঠাত্‍ বড়লোক

আদা জল খেয়ে লাগা

প্রাণপণ চেষ্টা করা

আমতা আমতা করা

ইতস্তত করা

আলালের ঘরের দুলাল

অতি আদুরে নষ্ট ছেলে

আকাশে তোলা

অতিরিক্ত প্রশংসা করা

আঁতে ঘা

প্রাণে আঘাত

আদিখ্যেতা

ন্যাকামি

আনাড়ি

অপটু , অনভিজ্ঞ

আঁটকুড়ো

নিঃসন্তান

ইলশে গুঁড়ি

গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি

ইঁদুর কপাল

মন্দভাগ্য

ইতর বিশেষ

প্রভেদ বা পার্থক্য

ঈদের চাঁদ

কাঙ্খিত বস্তু

উড়ো কথা

গুজব

উকর-ধাকর

এলোপাথাড়ি

উনিশ-বিশ

সামান্য পার্থক্য

উজলপাঁজল

উথালপাথাল

উজানের কৈ

সহজ লভ্য

উড়নপেকে

অপব্যয়ী

উনকোটি চৌষট্টি

প্রায় সম্পুর্ণ

উপোসি ছারপোকা

অভাবগ্রস্থ লোক

উলুখাগড়া

গুরুত্বহীন লোক

অকড়িয়া

ধনহীন

অকালকুসুম

অসম্ভব জিনিস

উলুবনে মুক্তো ছড়ান

বৃথা আয়োজন

উদোর পিন্ডি বুধোর ঘাড়ে

একের দোষ অন্যের ঘাড়ে চাপান

উত্তম মধ্যম

পিটুনি , প্রহার

অকটবিকট

ছটফটানি

উড়নচন্ডি

উচ্ছৃঙ্খল , অমিতব্যয়ি

অঞ্চলপ্রভাব

স্ত্রীর কু প্রভাব

অষ্টকপাল

হতভাগ্য

অনুরোধে ঢেঁকি গেলা

অপরের অনুরোধে অসাধ্য সাধন করা

খুদে রাক্ষস

পেটুক মানুষ

খুরে খুরে দন্ডবত্‍

হার স্বীকার

খেজুরে আলাপ

অকাজের কথা

খেরো খাতা

বাজে হিসাবের খাতা

খোদার উপর খোদকারি

অসংগত হস্তক্ষেপ

খোল নলচে বদলানো

আমূল পরিবর্তন

খয়ের খাঁ

চাটুকার

খাতির জমা

নিরুদ্বিগ্ন

খিচুড়ি পাকানো

জটিল করা

খন্ডকপাল

দুর্ভাগ্য

খন্ডপ্রলয়

তুমুলকান্ড , ভীষণ ব্যাপার

খোদার খাসি

হৃষ্টপুষ্ট ব্যক্তি

খাবি খাওয়া

ছটফট করা

গলবস্ত্র হওয়া

বিনীতভাবে অনুরোধ

গড্ডালিকা প্রবাহ

অন্ধভাবে অনুসরণ

গদাই লস্করি চাল

মন্থর গতি

গরজ বড় বালাই

প্রয়োজনে গুরুত্ব

গরিবের ঘোড়া রোগ

অবস্থার অতিরিক্ত অন্যায় ইচ্ছা

গণেশ উল্টানো

উঠে যাওয়া , ফেল মারা

গোল্লায় যাওয়া

নষ্ট হওয়া , অধঃপাতে যাওয়া

গরু মেরে জুতা দান

বড় ক্ষতি করে সামান্য পূরণ

গঙ্গাজলে গঙ্গাপুজো

পরে পরে সমাপন

গলায় পা দেওয়া

পীড়ন করা

গা তোলা

ওঠা

গায়ে কাঁটা দেওয়া

রোমাঞ্চ হওয়া

গাছে কাঁঠাল গোঁফে তেল

শুরুর আগেই ফলাফল প্রত্যাশা

গায়ে ফুঁ দিয়ে বেড়ানো

আরামে সময় কাটানো

গাছে তুলে মই কাড়া

আশা দিয়ে পরে নিরাশ করা

গোড়ায় গলদ

শুরুতেই ত্রুটি

গোবর গণেশ

অকর্মণ্য

গোঁফ খেজুরে

অত্যন্ত কুঁড়ে

গোদের উপর বিষফোঁড়া

যন্ত্রণার উপর আরও যন্ত্রণা

গুরুচন্ডালি

উঁচু-নিচুর সহাবস্থান

গলগ্রহ

পরের বোঝা হয়ে থাকা

গুড়ে বালি

আশায় নৈরাশ্য

গর্দভরাগিণী

কর্কশ সুর

গো-মুর্খ

নিরেট মর্খু বা বর্ণজ্ঞানহীন

গোঁয়ার গোবিন্দ

কান্ডজ্ঞানহীন

গৌরীসেনের টাকা

অফুরন্ত অর্থ

গো-বৈদ্য

হাতুড়ে

গৌরচন্দ্রিকা

ভুমিকা

গন্ডগ্রাম

বড়গ্রাম , অজপাড়াগাঁ

ঘুমগড়ে

ঘুমকাতুরে

ঘাট মানা

অন্যায় স্বীকার করা

ঘাড়ে-গর্দানে

অত্যন্ত মোটা

ঘোড়ার ডিম

অবাস্তব

ঘুঘু চরানো

সর্বনাশ করা

ঘর ভাঙা

ঐক্য নষ্ট করা

ঘা খাওয়া

আঘাত পাওয়া

ঘোড়ার ঘাস কাটা

অকাজে সময় নষ্ট

ঘোড়ার কামড়

দৃঢ় পণ

ঘাটের মড়া

অতি বৃদ্ধ

ঘোড়া দেখে খোঁড়া হওয়া

 

ঘর থাকতে বাবুই ভিজা

সুযোগ থাকতে কষ্ট

ঘোড়া রোগ

সাধ্যের অতিরিক্ত সাধ

ঘরপোড়া গরু

বেদনাদায়ক অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ব্যক্তি

ঘর ভাঙানো

সংসার বিনষ্ট করা

ঘোড়া ডিঙিয়ে ঘাস খাওয়া

পদ্দতির ব্যতিক্রম করা , মধ্যবর্তীকে অতিক্রম করে কাজ করা

চক্ষুদান করা

চুরি করা

চশমখোর

সম্পুর্ণ বেহায়া

চাঁদ-কপালে

ভাগ্যবান

চতুর্ভুজ হওয়া

উত্‍ফুল্ল হওয়া

চোখের চামড়া/পর্দা

চক্ষুলজ্জা

চোখের বালি

চক্ষুশূল

চক্ষের পুতলি

আদরের ধন

চড়ুই পাখির প্রাণ

ক্ষীণজীবী লোক

চর্বিত চর্বণ

পুনরাবৃত্তি

চাচা আপন প্রাণ বাঁচা

স্বার্থপর

চিনির বলদ

ভারবাহী

চক্ষু চড়কগাছ

বিস্ময়ে চোখ বড় হওয়া

চোদ্দবুড়ি

প্রচুর

চুনোপুঁটি

সামান্য লোক

চোখ কপালে তোলা

বিস্মিত হওয়া

চোখ নাচা

শুভাশুভের লক্ষণ

চুলের টিকি না দেখা যাওয়া

অদর্শন হওয়া

চেটেনেটে

কমবয়সী বধূ

চোখে সরষে ফুল দেখা

বিপদে দিশেহারা হয়ে পড়া

চক্ষুকর্ণের বিবাদ ভঞ্জন

নিঃসন্দেহ হওয়া

চড় মেরে গড় করা

আগে অপমান করে শেষে সম্মান

চাপান-উতোর

পারস্পরিক সন্দেহ

চিত্রগুপ্তের খাতা

যে খাতায় সবকিছু পাওয়া যায়

চাঁদের হাট

ধনেজনে পরিপূর্ণ সংসার

চিচিং ফাঁক

গোপন রহস্যের প্রকাশ

চোখে ধুলা দেওয়া

ঠকানো

চিনে জোঁক

নাছোড়বান্দা

ছাঁদনাতলা

বিবাহের মন্ডপ

ছামনি নাড়া

দৃষ্টি বিনিময়

ছারেখারে যাওয়া

ধ্বংস হওয়া

ছুঁচোর কেত্তন

অবিরাম কলহ

ছাই চাপা আগুন

অপ্রকাশিত প্রতিভা

ছেলের হাতের মোয়া

সামান্য বস্তু

ছুঁচো মেরে হাত গন্ধ করা

সামান্য স্বার্থে দুর্নাম অর্জন

ছক্কা পাঞ্জা করা

বড় বড় কথা বলা

ছিঁচ কাঁদুনে

অল্পেই কাঁদে এমন

ছা-পোষা

পোষ্য ভারাক্রান্ত

ছাই ফেলতে ভাঙা কুলো

সামান্যের বিশেষ প্রয়োজন

ছেঁড়া চুলে খোঁপা বাঁধা

পরকে আপন করার চেষ্টা

ছ কড়া ন কড়া

অপচয় অবহেলা করা

ছয়কে নয় নয়কে ছয় করা

অপচয় করা

ছাতা দিয়ে মাথা রাখা

বিপদে সাহায্য করা

ছিনিমিনি খেলা

নষ্ট করা

জলভাত

সহজসাধ্য

জলযোগ

হালকা খাবার

জলপান

হালকা খাবার

জলপানি

বৃত্তি

জগ দেওয়া

ঠকানো

জলগ্রহণ না করা

সম্পর্ক না রাখা

জলের দাগ

ক্ষণস্থায়ী

জামাই আদর

প্রচুর আদর যত্ন

জিগির তোলা

ধ্বনি দেওয়া

জীয়ন্তে মরা

জীবন্মৃত

জোড়ের পায়রা

ঘনিষ্ঠ বন্ধু

জগা খিচুড়ি

বিশৃঙ্খল

জগদ্দল পাথর

গুরুভার

জিলাপির প্যাঁচ

কুটবুদ্ধি

জহান্নামে যাওয়া

উচ্ছন্নে যাওয়া

জলাঞ্জলি দেওয়া

বিসর্জন দেওয়া

জুতো সেলাই থেকে চন্ডিপাঠ

ছোটবড় সব কাজ

জলে কুমির ডাঙায় বাঘ

উভয় সঙ্কট

চক্ষু দান করা

চুরি করা

ঝাড়েবংশে

সবশুদ্ধ

ঝাঁকের কৈ

এক দলভুক্ত

ঝালে ঝোলে অম্বলে

সর্বত্র বিরাজিত

ঝড়ো কাক

বিপর্যস্ত

ঝড়তি-পড়তি

ছোটখাটো অংশ

ঝিঙেফুল ফোটা

আয়ু ফুরিয়ে আসা

ঝোলের লাউ অম্বলের কদু

সব পক্ষের মন জুগিয়ে চলা

ঝোলে অম্বলে এক করা

মিশিয়ে ফেলা

ঝরাপাতা

জীর্ণশীর্ণ লোক

ঝিকে মেরে বউকে শেখানো

একজনের মাধ্যমে অপরকে শিক্ষাদান

ঝোপ বুঝে কোপ মারা

সুযোগ মতো কাজ করা

টই টম্বুর

কানায় কানায় পূর্ণ

টনক নড়া

সজাগ হওয়া

টাকার কুমির

ধনী ব্যক্তি

টাকাটা সিকিটা

খুব সামান্য টাকা

টুপ ভুজঙ্গ

নেশায় বিভোর

টেন্ডাই মেন্ডাই

আস্ফালন

টানা পোড়ন

বিরক্তিকর যাতায়াত

টেঁকে গোঁজা

আত্মসাত্‍ করা

টুপি পরানো

খোসামোদ করা

টাল সামলানো

বিপদ হতে মুক্তি

টীকা ভাষ্য

দীর্ঘ আলোচনা

ঠক বাছতে গাঁ উজাড়

পরিণামে শূন্য লাভ

ঠারে ঠারে

ইঙ্গিতে

ঠান্ডা লড়াই

গোপনে বিরোধিতা

ঠোঁট কাটা

স্পষ্টভাষী

ঠেকা মেয়ে

চিরকুমারী

ঠুঁটো জগন্নাথ

অকর্মণ্য

ঠাঁট বজায় রাখা

অভাব চাপা রাখা

ডিমে রোগা

চির রুগ্ন

ডান হাতের ব্যাপার

খাওয়া

ডামাডোল

গোলযোগ

ডকে ওঠা

নষ্ট হওয়া

ডুমুরেরফুল

অদর্শনীয়

ডুবে ডুবে জল খাওয়া

গোপনে কাজ করা

ডাইনে আনতে বাঁয়ে কুলোয় না

আয়ের চেয়ে ব্যয় বেশি

ঢক্কা-নিনাদ

উচ্চ কণ্ঠে ঘোষণা

ঢাকের কাঠি

তোষামুদে

ঢাক ঢাক গুড় গুড়

লুকোচুরি

ঢাকের বাঁয়া

অপ্রয়োজনীয়

ঢাকে কাঠি পড়া

সূচনা হওয়া

ঢেঁকি অবতার

নির্বোধ লোক

ঢেরা সই

নিরক্ষর লোকের সই

ঢেউ গনা

বাজে কাজে সময় নষ্ট

ঢেঁকি না কুলো , না ঢেঁকি না কুলো

অন্নসংস্থানের উপায় না থাকা

ঢেউগোনা

অকাজে সময় নষ্ট

ঢেঁকির কুমির

অপদার্থ

ঢি ঢি পড়া

কলঙ্ক

ত-খরচা

বাজে খরচ

তক্কে তক্কে থাকা

গোপনে সতর্ক থাকা

তালগাছের আড়াই হাত

শেষ ও সবচেয়ে কঠিন অংশ

তাল পাতার সেপাই

ক্ষীণজীবী

তালকানা

বেতাল হওয়া

তাসের ঘর

ক্ষণস্থায়ী ঘর

তামার বিষ

অর্থের কুপ্রভাব

তেল-নুন-লাকড়ি

মৌলিক প্রয়োজন

তীর্থের কাক

প্রতীক্ষারত

তিন মাথা এক হওয়া

খুব বূদ্ধ হওয়া

ত্রিশঙ্কু অবস্থা

মধ্যাবস্থা

তিনঠেঙে

লাঠি হাতে বুড়ো

তুর্কি নাচন

নাজেহাল অবস্থা

তুষের আগুন

দীর্ঘস্থায়ী মানসিক যন্ত্রণা

তুলসী বনের বাঘ

সুবেশে দুর্বৃত্ত

তুবড়ি ছোটা

বেশি কথা বলা

তোলা হাঁড়ি

গম্ভীর

থ হওয়া

স্তম্ভিত হওয়া

থ পাতা

স্থায়ীভাবে কিছু করা

থোড়াই কেয়ার করা

গ্রাহ্য না করা

থরহরি কম্প

ভয়ে প্রচন্ড কাঁপা

দক্ষিণ হস্তের ব্যপার

ভোজন

দড়ি-কলসি

আত্মহত্যার উপায়

দফা নিকেশ

সমূহ সর্বনাশ

দহলা-নহলা করা

ইতস্তত করা

দহরম মহরম

অন্তরঙ্গতা

দা-কুমড়া সম্বন্ধ

শত্রুতা

দাঁতে দাড়ি দিয়ে পড়ে থাকা

অনাহারে থাকা

দাঁড়কাকের ময়ূরপুচ্ছ

অনুকরনের হাস্যকর চেষ্টা

দুধে ভাতে থাকা

সুখে থাকা

দেঁতো হাসি

কৃত্রিম হাসি

দুধ-ঘিয়ের শ্রাদ্ধ করা

অপব্যয়

দোজবরে

দ্বিতীয়বার যে ছেলে বিয়ে করতে চায়

দুধের সাধ ঘোলে মিটানো

ভালর অভাব মন্দ দিয়ে পূরণ

দিন ফুরানো

আয়ু শেষ

দুধের মাছি

সুসময়ের বন্ধু

দু নৌকায় পা

উভয় সংকট

দক্ষিণার জোর

টাকা পয়সা দি

ধর্মের কল

সত্য

ধরতাই বুলি

চালু কথা

ধড়া-চূড়া

সাজপোশাক

ধর্মের ষাঁড়

যথেচ্ছাচারী

ধামাধরা

তোষামোদকারী

ধেয়ে নাচনি

ধিঙ্গি মেয়ে

ধোপা নাপিত বন্ধ করা

একঘরে করা

ধোপার গাধা

পরের জন্য খাটা

ধড়ে প্রাণ আসা

বিপদ থেকে উদ্ধার

ধরাকে সরা জ্ঞান করা

অহঙ্কারে সব কিছুকে তুচ্ছ মনে করা

ধান ভানতে শিবের গীত

অপ্রাসঙ্গিক বিষয়ের অবতারণা

ধান দিয়ে লেখাপড়া শেখা

নামমাত্র খরচ

ধনুক-ভাঙা পণ

সুকঠিন প্রতিজ্ঞা

ধর্মপুত্র যুধিষ্ঠির

ধার্মিক

ধরি মাছ না ছুঁই পানি

কৌশলে কার্যোদ্ধার

নখদর্পণে

পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে আয়ত্তে

নবমী দশা

মূর্ছা

নমাসে-ছমাসে

কালে-ভদ্রে

নরক গুলজার

অনেক জুটে সরগরম

নাচতে নেমে ঘোমটা

বৃথা লজ্জা

নারদের ঢেঁকি

বিবাদের বিষয়

নিজের ঢাক নিজে পেটানো

আত্মপ্রচার

নুড়ো জ্বেলে দেওয়া

মৃত্যু কামনা করা

নোলা বাড়ানো

লোভ করা

নগদ নারায়ণ

নগদ অর্থ

নজর দেওয়া

কুদৃষ্টি

ননির পুতুল

সহজে কাতর , আদুরে দুলাল

নয় ছয়

অপব্যয়

নিরানব্বয়ের ধাক্কা

সঞ্চয়ের প্রবৃত্তি

নিজের চরকায় তেল দেওয়া

নিজের কাজে মন দেওয়া

নেই আঁকড়া

একগুঁয়ে স্বভাবের

নিমরাজি

আংশিক স্বীকার করা

পঞ্চত্ব প্রাপ্ত

মারা যাওয়া

পই পই করে

বার বার স্মরণ করিয়ে দেওয়া

পরঘরি পান্তা মারি

হাড়হাভাতে লোক

পর্বতের মূষিক প্রসব

বিরাট সম্ভাবনা

পশ্চিমদিকে সূর্য ওঠা

অসম্ভব ব্যাপার

পায়ে রাখা

আশ্রয় দেওয়া

পাকে-প্রকারে

কলে-কৌশলে

পান্ডববর্জিত

সভ্য লোকের বাসের অযোগ্য

পাথরে পাঁচ কিল

অদৃষ্ট সুপ্রসন্ন

পান থেকে চুন খসা

সামান্য ত্রুটি হওয়া

পান্তা ভাতে ঘি

অপব্যবহার

পায়াভারি

অহংকার

পাষাণ ভাঙা

দাঁড়িপাল্লার ফের ভাঙা

পিঁপড়ের পেট টেপা

অত্যধিক হিসাব করে চলা

পুঁটিমাছের প্রাণ

ক্ষীণজীবী লোক

পুথি বাড়ানো

ফেনিয়ে বর্ণনা করা

পুরনো কাসুন্দি ঘাঁটা

অপ্রীতিকর আলোচনা

পঞ্চমুখ হওয়া

অতিরিক্ত কথা বলা

পটল তোলা

মারা যাওয়া

পটের বিবি

সুসজ্জিত

পত্রপাঠ

তত্‍ক্ষণাত্‍

পালের গোদা

দলপতি

পাগারপার

পালানো

ফতো নবাব

সম্বলহীনের বড়লোকিভাব

ফুটিফাটা

চৌচির

ফুলের গায়ে মূর্ছা যাওয়া

সামান্য পরিশ্রমে কাতর

ফোঁস মনসা

ক্রোধী লোক

ফপর দালালি

অতিরিক্ত চালবাজি

বিন্দু বিসর্গ

সামান্য অংশ

বউ-কাঁটকি

পুত্রবধূকে যন্ত্রণা দেয় যে

বক দেখানো

অশোভনভাবে বিদ্রুপ করা

বচনবাগীশ

কথায় পটু

বয়সের গাছ পাথর না থাকা

অত্যন্ত বৃদ্ধ

বইয়ের পোকা

পড়ুয়া

বর্ণচোরা আম

বহিরঙ্গ একমাত্র পরিচয় নয়

বাঘে গরুতে এক ঘাটে জল খাওয়া

ক্ষমতা প্রদর্শন

বাড়া ভাতে ছাই দেওয়া

সফল হওয়ার মুখে বাধা

বামন হয়ে চাঁদে হাত দেওয়া

অসম্ভব কিছু পাবার চেষ্টা

বামনের গরু

যে অল্প পরিশ্রমিকে বেশি কাজ করে

বার সতেরো

খুঁটিনাটি

বার মাস ত্রিশ দিন

প্রতিদিন

বারো মাসে তেরো পার্বণ

উত্‍সবের আধিক্য

বালির বাঁধ

ক্ষণস্থায়ী

বাহাত্তরে ধরা

মতিচ্ছন্ন হওয়া

বিড়াল তপস্বী

ভন্ড লোক

বিড়ালের আড়াই পা

ক্ষণস্থায়ী রাগ

বিনা মেঘে বজ্রপাত

অপ্রত্যাশিত বিপদ

বিরাশি সিক্কা এজন

বিপুল ওজন

বুড়ি ছোঁয়া

নামমাত্র নিয়ম পালন

বুড়ো বয়সে চূড়াকরণ

খোকামি

বুদ্ধির ঢেঁকি

নির্বোধ লোক

বোঝার উপর শাকের আঁটি

অতিরিক্তের অতিরিক্ত

ব্যাঙের আধুলি

সামান্য পুঁজি হলেও যা গর্বের

ব্যাঙের লাথি

নগণ্য লোকের দ্বারা অপমান

ব্যাঙের সর্দি

অসম্ভব ব্যাপার

বকধার্মিক

ভন্ড

বগল বাজানো

আনন্দ প্রকাশ করা

বজ্র আঁটুনি ফসকা গেরো

বাইরে আড়ম্বর ভেতরে শূন্যতা

বয়ে যাওয়া

ক্ষতিবৃদ্ধি জ্ঞান না করা

বসন্তের কোকিল

সুদিনের বন্ধু

নয়-দুয়ারি

দ্বারে দ্বারে ভিক্ষা করে এমন

ভয়ে কেঁচো হয়ে থাকা

ভয়ে জড়সড় হওয়া

ভাঁড়ে মা ভবানী

একেবারে দরিদ্র

ভিমরুলের চাকে খোঁচা দেওয়া

উস্কানি দেয়া

ভীষ্মের প্রতিজ্ঞা

অনড় সংকল্প

ভূতের বাপের শ্রাদ্ধ

অপচয়জনক ব্যাপার

ভূষন্ডির কাক

বিচক্ষণ ব্যক্তি

ভস্মে ঘি ঢালা

নিস্ফল কাজ

ভাদ্র মাসের তাল

প্রচন্ড কিল

ভানুমতীর খেল

অবিশ্বাস্য ব্যাপার

ভিজে বিড়াল

কপটচারী

ভিটায় ঘুঘু চরানো

সর্বস্বান্ত করা

ভূত ঝাড়া

নির্দয়ভাবে প্রহার

ভূতের বেগার খাটা

নিষ্ফল পরিশ্রম করা

ভরাডুবি

সর্বনাশ

ভেরেন্ডা ভাজা

অকাজে সময় নষ্ট করা

ভুঁইফোড়

নতুন আগমন

ম-ম করা

সুগন্ধে ভরে যাওয়া

মকশো করা

অভ্যাস করা

মণিকাঞ্চন যোগ

উপযুক্ত মিলন

মণিহারা ফণী

প্রিয়জনের জন্য অস্থির লোক

মন উচাটন হওয়া

অস্থির হওয়া

মশা মারতে কামান দাগা

সামান্য কাজে বিরাট আয়োজন

ময়ূর ছাড়া কার্তিক

রুপবান পুরুষ

মহাভারত অশুদ্ধ

বড় রকমের অপরাধ

মাছের তেলে মাছ ভাজা

পরে পরে কার্যোদ্ধার

মাছের মায়ের পুত্রশোক

লোক দেখানো শোক

মাথায় আকাশ ভেঙে পড়া

আকস্মিক বিপদে

মাথার ঘায়ে কুকুর পাগল

ভীষণ বিপদে অস্থির অবস্থা

মানের গুড়ে বালি

সম্মানহানি

মান্ধাতার আমল

অতি প্রাচীনকাল

মিছরির ছুরি

অপাতমধুর কিন্তু তীক্ষ্ন ও মর্মভেদী

মেঘ না চাইতে জল

আশাতীত ফল

মেঘে মেঘে বেলা হওয়া

বয়স বাড়া

মৌতাত চড়ানো

নেশা করা

মগের মুল্লুক

অরাজক দেশ

মড়াকান্না

উচ্চকন্ঠে শোক প্রকাশ

মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা

বিপন্ন লোকের উপর অত্যাচার

মাকাল ফল

অন্তঃসারশুন্য

ম্যাও ধরা

দায়িত্ব নেওয়া

মোল্লার দৌড় মসজিদ পর্যন্ত

সীমাবদ্ধতা

যাহা বাহান্ন তাহা তিপ্পান্ন

খুব সামান্য তফাত

যক্ষের ধন

কৃপণের ধন

যমের অরুচি

যে সহজে মরে না

যম যন্ত্রণা

খুব কষ্ট

যমের দোসর

নিষ্ঠুর ব্যক্তি

যমের ভুল

যার মরণ হয় না

রক্তের অক্ষরে লেখা

সংগ্রামের কাহিনি

রগচটা

অল্পেই রাগে

রাঙা শুক্রবার

কোনো দিনই নয়

না রাম না গঙ্গা

ভালো মন্দ কিছুই না

রাম রাজত্ব

শান্তিশৃঙ্খলাযুক্ত রাজ্য

রামগরুড়ের ছানা

গোমড়ামুখো লোক

রুই কাতলা

প্রভাবশালী লোকজন

রাই কুড়িয়ে বেল

ক্ষুদ্র সঞ্চয়ে বৃহত্‍

রাঘব বোয়াল

সর্বগ্রাসি এবং প্রভাবশালী লোকজন

রাঙা মুলো

প্রিয়দর্শন কিন্তু গুণহীন

রাজা উজির মারা

আড়ম্বরপুর্ণ গালগল্প

রাবণের গোষ্ঠী

বড় পরিবার

রাবণের চিতা

চির অশান্তি

রাশভারি

গম্ভীর প্রকৃতির

লঘুপাপে গুরুদন্ড

সামান্য অপরাধে গুরুতর শাস্তি

লোটাকম্বল

সামান্য সংগতি

লোহার কার্তিক

কালো কুত্‍সিত লোক

লগন চাঁদ

ভাগ্যবান

লেজে গোবরে করা

বিশৃঙ্খলা করা

লেজে পা পড়া

স্বার্থহানি করা

লেফাফা দুরস্ত

বাইরে পরিপাটি

শবরীর প্রতীক্ষা

দীর্ঘকাল ধরে প্রতীক্ষা

শালগ্রামের শোয়া বসা

নির্বিকার লোকের মনের অবস্থা

শিবরাত্রির সলতে

একমাত্র বংশধর

শিয়রে শমন

মৃত্যু আসন্ন

শিয়ালের যুক্তি

অসম্ভব যুক্তি

শিরে সংক্রান্তি

সামনেই বিপদ

গুঁড় বার করা

লোভ করা

শুয়োরের গোঁ

ভয়ানক

শ্মশান-বৈরাগ্য

সাময়িক বৈরাগ্য

শ্যাম রাখি না কুল রাখি

উভয়সংকট

শকুনি মামা

অনিষ্টকর অত্মীয়

শনির দশা

দুঃসময়

শাঁখের করাত

উভয়সঙ্কট

শাক দিয়ে মাছ ঢাকা

দোষ গোপনের বৃথা চেষ্টা

শাপে বর

অনিষ্টে ইষ্ট লাভ

শ্রীঘর

জেলখানা

শিকায় তোলা

স্থগিত

ষাঁড়ের গোবর

অপদার্থ লোক

ষত্ব ণত্ব জ্ঞান

কান্ডজ্ঞান

ষোল কড়াই কানা

সম্পুর্ণ বিনষ্ট

ষাটের কোলে

অধিক বয়স

সপ্তমে চড়া

প্রচন্ড উত্তেজনা

সবুরে মেওয়া

ধৈর্যে সুফল

সাজ করতে দোল ফুরানো

প্রস্তুতির জন্য অত্যধিক সময় নেওয়া

সাপের ছুঁচো গেলা

উভয়সংকটে পড়া

সাতকাহন

প্রচুর পরিমাণ

সাপের পাঁচ পা দেখা

অহংকারের বাড়াবাড়ি

সুখে থাকতে ভূতে কিলানো

অকারণে দুংখ ডেকে আনা

সুখের পায়রা

সুসময়ের বন্ধু

সুলুক সন্ধান

খোঁজখবর

সোনার কাঠি রুপোর কাঠি

বাঁচামরার উপায়

সোনার পাথর বাটি

অলীক বস্তু

স্বর্গে বাতি দেওয়া

বংশ রক্ষা করা

সাক্ষিগোপাল

ব্যক্তিত্বহীন নিস্কৃয় দর্শক

সাত খুন মাফ

অত্যধিক প্রশ্রয়

সাত সতের

বিচিত্র রকমের

সোনায় সোহাগা

সুন্দর মিল

সের দরে

নামমাত্র মূল্যে

হরিহর অত্মা

অন্তরঙ্গ বন্ধুত্ব

হলুদের গুঁড়ো

সমস্ত ব্যাপারে যে উপস্থিত

হাটে হাঁড়ি ভাঙা

গোপন কথা ফাঁস করে দেওয়া

হাড়ে মাসে জ্বালানো

অত্যন্ত উত্যক্ত করা

হাড়ে বাতাস লাগা

স্বস্তি পাওয়া

হাতে আকাশ পাওয়া

অভাবিতভাবে কিছু লাভ

হাতে পাঁজি মঙ্গলবার

প্রকৃত প্রমাণ দেয়া

হাতির গলায় ঘন্টা

বয়স্ক বরের বালিকা বধূ

হুঁকো নাপিত বন্ধ করা

সমাজচ্যুত করা

হচ্ছে হবে

দীর্ঘসূত্রিতা

হদিস পাওয়া

সঠিক সংবাদ পাওয়া

হ য ব র ল

বিশৃঙ্খল

হরি ঘোষের গোয়াল

বহু অপদার্থ ব্যক্তির সমাবেশ

হরিলুট

অপচয়

হস্তিমূর্খ

ভীষণ বোকা

হাঁটুর বয়স

নিতান্ত শিশু

হেস্তনেস্ত

মীমাংসা

হাতের লক্ষ্মী পায়ে ঠেলা

হেলায় সুযোগ নষ্ট করা

হাতে খড়ি

শিক্ষার সূচনা

হাপিত্যেশ

ব্যাকুল কামনা

হা-ঘরে

গৃহহীন

হাতটান

চুরির অভ্যাস

হাড় হাভাতে

হতভাগ্য

হালে পানি পাওয়া

সুবিধা করা

নকশা করা

তামাশা করা , ন্যাকামি করা

নটঘট , নটঘটি

কেলেঙ্কারি , নষ্টামি

নব কর্তিক

সুদর্শন কিন্তু অকর্মণ্য ব্যক্তি

নাকে মুখে গোঁজা

খুব তাড়াতাড়ি করা

নিকুচি করা

শেষ করা , দফারফা করা , অগ্রহ্য করা

নিজের কোলে ঝোল টানা

নিজের স্বার্থ বেশি করে দেখা

নিদেনপক্ষে

অন্তত , কম করে হলেও

নোঙর ছেঁড়া

উদ্দেশ্যহীন

নোনা জল ঢোকানো

নিজেই নিজের ক্ষতি বা বিপদ ডেকে আনা

ন্যালাখ্যাপা

পগলাটে

নিসপিস করা

উসখুস করা

নাম ডুবানো

সম্মান বিসর্জন

নজর লাগা

অশুভ দৃষ্টিতে পড়া

নেক নজরে পড়া

সুদৃষ্টিতে পড়া

নদীকূলে বাস

ভয়ের জায়গায় অবস্থান

নজর কাড়া

দৃষ্টি অকর্ষন করা

নবমীর পাঁঠা

প্রণভয়ে ভীত ব্যক্তি

নিমকহারাম

অকৃতজ্ঞ

অথই জল

গভীর সংকট , ঘোর বিপদ

অন্ন ধংস করা

অলসভাবে জীবন কাটানো এবং নির্বিকারভাবে খেয় যাওয়া

আমদুধে মেশা

উপযুক্ত মিলন

কাক ভূষন্ডী

দীর্ঘায়ু ব্যক্তি

কল্কে পাওয়া

পাত্তা পাওয়া

কংস মামা

নির্মম আত্মীয়

কাঁচা বাঁশে ঘুণ ধরা

ছোটতেই নষ্ট হওয়া

গাছে না উঠতেই এক কাঁদি

কাজ শুরুর আগে ফল পেতে শুরু করা

বিদুরের খুদ

শ্রদ্ধার সামান্য উপহার

হাড়ে দুর্বা গজান

আলসেমী

হাত ধুয়ে বসা

সাধু সাজা

মাছের মা

নিষ্ঠুর

মাছের মার পুত্র শোক

লোক দেখানো দুঃক