Warning: session_set_cookie_params(): Cannot change session cookie parameters when session is active in /home/kajkhuji/public_html/includes/theme/head.php on line 2
KajKhuji - পরিবেশ দূষণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা

Share:

বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালন করা হয় – ৫ জুন

◙ দুর্যোগের ঝুঁকি কমানোর ব্যবস্থাকে বলে- দুর্যোগের প্রস্তুতি।

◙ জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে – প্রাকৃতিক পরিবেশ।

◙ পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য দেশে বনভূমি থাকা দরকার- মোট আয়তনের শতকরা ২৫ ভাগ।

◙ গ্রিন হাউজ ইফেক্ট বলতে বুঝায়- তাপ আটকে পড়ে সার্বিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি।

◙ গ্রিন হাউজে গাছ লাগানো হয়- অত্যধিক ঠাণ্ডার হাত থেকে রক্ষার জন্য।

◙ গ্রিন হাউজ ইফেক্টের পরিণতিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে গুরুতর ক্ষতি- নিুভূমি নিমজ্জিত হবে।

◙ বায়ুমণ্ডলের ওজোনস্তর অবক্ষয়ে সর্বোচ্চ ভূমিকা – ক্লোরোফ্লোরো কার্বনের (সিএফসি)।

◙ ক্লোরোফ্লোরো কার্বন (CFC)- ওজোনস্তর ধ্বংস করে।

◙ ক্লোরোফ্লোরো কার্বন (CFC) ওজোনস্তর ধ্বংসের কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়- ১৯৭৩ সালে।

◙ জীবজগতের সবচেয়ে ক্ষতিকারক রশ্মি- গামা রশ্মি।

◙ বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই-অক্সাইডের পরিমাণ ২৫%-এর বেশি হলে- কোন প্রাণী বাঁচতে পারে না।

◙ বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই-অক্সাইড বৃদ্ধির প্রধান কারণ- গাছপালা কমে যাওয়া।

◙ এসিড বৃষ্টি হয় বাতাসে – সালফার ডাই-অক্সাইডের আধিক্যে।

◙ গাড়ি থেকে নির্গত কালো ধোঁয়ায় থাকে- বিষাক্ত কার্বন মনোক্সাইড গ্যাস।

◙ ই-৮ হল- পরিবেশ দূষণকারী ৮টি দেশ।

◙ আদর্শ মাটিতে জৈব পদার্থ থাকে- ৫%।

◙ ইকোলজির বিষয়বস্তু হল- প্রাণিজগতের পরিবেশের সঙ্গে অভিযোজনের উপায় নির্দেশ।

◙ প্রাকৃতিক পরিবেশ দূষণের জন্য সবচেয়ে বেশী দায়ী – মানুষ।

◙ সর্বপ্রথম পানি দূষণকে সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করেছেন – হিপোক্রেটিস।

◙ যে দূষণ প্রক্রিয়ায় পৃথিবীর মানুষ সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয় – পানি।

◙ সাগরের পানি তেল দ্বারা দূষিত হলে- অক্সিজেন তৈরি কম হয়।

◙ পরিবেশ দূষণের ফলে প্রধানত হতে পারে- উচ্চ রক্তচাপ।

◙ ১৮৯৬ সালে গ্রিন হাউজ শব্দটি সর্বপ্রথম ব্যবহার করেন- সুইডিস রসায়নবিদ সোভনটে আরহেনিয়াস।

◙ ওজোনের রং- গাঢ় নীল।