Warning: session_set_cookie_params(): Cannot change session cookie parameters when session is active in /home/kajkhuji/public_html/includes/theme/head.php on line 2
KajKhuji - বিসিএস ও আমার ১১ মাস

বিসিএস ও আমার ১১ মাস

Category: BCS
Posted on: Tuesday, September 19, 2017

Share:

আমাদের বাংলাদেশে চাকরি নামের সবচাইতে দামী সোনার হরিণ হলো বিসিএস। অনেকেই ইনবক্সে আমার বিসিএস সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন কিন্তু ব্যাংকের কাজের চাপের কারনে সবাইকে হয়তো ঠিকমতো জানাতে পারিনি; সেই জন্য আমি আমার সকল ভাই ও বোনের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী frown emoticon সেই সাথে এটা দেখে খুব ভালো লাগলো যে, আমরা যারা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী আছি তাদেরও অদম্য ইচ্ছে আছে ক্যাডার হবার। তাই বলতে চাই; লক্ষ্য যদি হয় অটুঁট তবে দেখা হবেই হবে বিজয়ে, কে কোথা থেকে এসেছি সেটা কোনো বিষয় নয়।

যাই হোক মনে রাখতে হবে বিসিএস Preliminary পরীক্ষা মানেই বাদ দেওয়ার পরীক্ষা। এখানেই বাদ পরার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি; হয়তো আপনি এখানেই বাদ পড়ে যেতে পারেন। তাই এই স্টেজটা সবার জন্যই গুরুত্বপূর্ন। এখানেই আপনাকে সবচেয়ে বেশি পরিশ্রম করতে হবে।

আগেই বলেছিলাম; আমি ততটা মেধাবী নই। এখানে যা কিছুই শেয়ার করবো তার পুরোটাই হচ্ছে আমার কথা; যেভাবে আমি নিজেকে গুছিয়ে নিয়েছি তার ইতিগাথা। বলে রাখা ভালো আমি বিসিএস কনফিডেন্স কোচিং সেন্টারে কোচিং করেছিলাম। আর একটা কথা না বললেই নয়; ক্যাডার হওয়ার জন্য আপনার আশেপাশের মানুষের অনুপ্রেরণার কোনো বিকল্প নেই। শাহ-আলম, মেহেদী, শিরিন আমার বিসিএস ক্যাডার হবার পেছনে তোদের অবদান আমি কখনোই ভুলবো না। বিশেষ করে শাহ-আলম, তোর গল্পটা আমি আরেকদিন শেয়ার করবো সবার সাথে।

মূল কথায় আসি;
যে কোনো পরীক্ষাই হোক, সেটা একাডেমিক কিংবা চাকরির পরীক্ষা; সকল ক্ষেত্রেই পরীক্ষার সিলেবাস মুখস্থ রাখা সবচেয়ে জরুরী smile emoticon তাছাড়া ৩৫-তম থেকে ২০০ নম্বরের preliminary পরীক্ষা হচ্ছে। তাই সিলেবাস সম্পর্কে সচেতন হতে হবে আরো বেশি।

আজ বলবো বাংলা ভাষা ও সাহিত্য সম্পর্কে যেখান থেকে ৩৫ নম্বর থাকবে Preliminary পরীক্ষায়। এখানে নূন্যতম ৩০ এবং সর্বোচ্চ ৩৫ নম্বর পাবার টার্গেট ছিলো আমার। এবার আপনি কত নম্বর পাবার টার্গেট করবেন সেটা আপনি নিজেই ঠিক করবেন। এখানে দুইটি বইয়ের নাম আমি রেফার করবো যার একটি “লাল নীল দীপাবলী” আর অন্যটি নবম-দশম শ্রেণীর “ব্যাকরণ বই”। এই বই দুটি আমি এতোটাই দাগিয়েছিলাম যে বইয়ের রংই বদলে গিয়েছিলো। smile emoticon যাকগে, ব্যাকরণ বই থেকে আপনি ভাষার – ১৫ নম্বরের উত্তর দিতে পারবেন আর লাল-নীল-দীপাবলী থেকে সাহিত্যের জন্য কিছুটা সাহায্যে পাবেন। সাহিত্যের ২০ নম্বরের জন্য আমি কোচিংয়ের স্যারদের লেকচার যেটা নোট করেছিলাম সেটা ফলো করেছি। আরেকটি বই আপনারা চাইলে দেখতে পারেন, সেটা হলো সৌমিত্র শেখর স্যারের “ভাষা জিজ্ঞাসা” বইটি।
বিসিএস এর বাংলা বিষয়ের সিলেবাস দেখে এই বই গুলো থেকে মুখস্থ করে করে নিতে পারেন।

আমার একটি সমস্যা ছিলো আমি মনে রাখতে পারতাম না যে বাংলার আধুনিক যুগের কোন কবি কে কি লিখেছেন, জন্ম-মৃত্যু, কাব্য থেকে শুরু করে প্রকাশ সাল ইত্যাদি ইত্যাদি frown emoticon … তারপরেও চেষ্টা চালিয়ে গেছি এবং পড়ার পরে একা একাই বিড় বিড় করতাম কি পড়েছি আর কতটুকু মনে আছে!!! বন্ধু শাহ-আলমের সাথে হাটার সময়, খাওয়ার সময়, কোচিংয়ে, গ্রুপ স্ট্যাডির সময়ে, এমনকি মাঝে মাঝে মোবাইলেও আলোচনা করেছি আমার পঠিত বিষয়গুলো; এভাবেই চলেছিলো সময়। একদিনে পারিনি, আস্তে আস্তে সময় নিয়ে পেরেছিলাম smile emoticon … তাই একটু সময় নিয়ে চেষ্টা করুন; সফলতা আপনাকেই খুজছে, সময়ের অপেক্ষা মাত্র।
ইনশাআল্লাহ খুব দ্রুত পরবর্তী পোষ্ট দেওয়ার চেষ্টা করবো; সে পর্যন্ত সবাই ভালো থাকবেন; এবং আমার জন্য দোয়া করবেন।
আল্লাহ্ হাফেজ
মোঃ শরিফ হোসেন
হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে সুপারিশ প্রাপ্ত
৩৪তম বিসিএস